আব্দুল্লাহ আল মুবিন

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে ভারতের মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারীদের ইজতেমা বন্ধ করল প্রশাসন।

মঙ্গলবার (৩ মার্চ) জেলা প্রশাসক মোঃ সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে আগামী ৫ মার্চ থেকে ৭ মার্চ পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জেলা ইজতেমা বাস্তবায়নের লক্ষে মাওলানা সা’দ কান্ধলভীর অনুসারীদের আয়োজনে এই জেলা ইজতেমার প্রস্ততি চলছিল।

তবে কিশোরগঞ্জের ওলামায়ে কেরাম ইজতেমা বন্ধের দাবিতে মঙ্গলবার সকাল থেকে  প্রতিবাদ সম্মেলন করে। কিশোরগঞ্জ ইমাম ও উলামা পরিষদের আয়োজনে এ প্রতিবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন পরিষদের সভাপতি মাওলানা শফিকুর রহমান জালালাবাদী, সহসভাপতি ও জামিয়ার মহাপরিচালক মাওলানা শাব্বির আহমেদ রশিদ, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবুল বাশার, জামিয়ার সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা ইমদাদুল্লাহ, মাওলানা লুৎফুর রহমান, মাওলানা আনজার শাহ তানীম, মাওলানামোহাম্মদ উল্লাহ জামী, বাজিতপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আঃ সাত্তার, প্রিন্সিপাল মাওলানা জাহাঙ্গীর, কিশোরগঞ্জ তাবলিগ মারকাযের মুরুব্বী মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক,আখরাবাজার মদনী মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা হাফেজ মুহাম্মদ তৈয়ব,মাও শেরজাহান প্রমুখ।

সম্মেলন চলাকালে একটি প্রতিনিধিদল জেলা প্রশাসকের সাথে স্বাক্ষাত করলে জেলা প্রশাসক পাকুন্দিয়ার ইজতেমা হবে না বলে আশ্বস্ত করেন।

জেলা প্রশাসক মোঃ সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে ইজতেমা হচ্ছে না।

Share This Post