ক’রোনা ভা’ইরাস থেকে ক্রমেই সুস্থ হয়ে উঠছেন শহীদ আফ্রিদি। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এক ভিডিও বার্তায় আফ্রিদি জানিয়েছেন, তার স্বাস্থ্য সংক্রান্ত নেতিবাচক খবরগুলো সব গুজব।
তবে তিনি এটাও জানিয়েছেন, ক’রোনা পজিটিভ হওয়ার পর প্রথম ২-৩ তিন কিছুটা সমস্যা হয়েছে তার। তবে এরপর থেকে ক্রমেই তার স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে।

এ অবস্থায় তাকে নিয়ে দুশ্চিন্তা না করার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে নিজেদের ক’রোনামুক্ত রাখার ব্যবস্থা গ্রহণের দিকে সবাইকে মনোযোগ দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

ক’রোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই নিজেকে ঘরবন্দি থেকেছেন শহীদ আফ্রিদি। কিন্তু এই সময়টায় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তার অনুপস্থিতির সুযোগে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে, সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়কের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে।
তবে সেই গুঞ্জন ডালপালা মেলার আগেই ভক্তদের স্বস্তি দিয়ে এই অলরাউন্ডার জানিয়ে দিলেন, সুস্থ হয়ে উঠছেন তিনি।

ওই ভিডিও বার্তায় আফ্রিদি জানালেন, তিনি জানতেন যে একদিন ক’রোনায় আক্রান্ত হবেন। কারণ, মহামারি শুরুর পর থেকেই নিজের প্রতিষ্ঠিত ‘শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন’র মাধ্যমে ক’রোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে ছুটে বেড়িয়েছেন তিনি।

আফ্রিদি বলেন, আমি আমার সন্তানদের খুব মিস মরছি। কিন্তু নিজেকে এবং বাকি সবাইকে ক’রোনামুক্ত রাখতে এছাড়া কোনো উপায় নেই। যেহেতু আমি দাতব্য কাজে সম্পৃক্ত ছিলাম, ফলে আক্রান্ত যে হবো তা আগে থেকেই জানতাম। সৌভাগ্যবশত আমি আগে আক্রান্ত হইনি, কারণ শুরুতে এমন হলে আমি হয়তো মানুষকে প্রয়োজনীয় সামগ্রী দিয়ে সহায়তা করতে পারতাম না।
পাকিস্তান এবং পাকিস্তানের বাইরে থেকে অসংখ্য মানুষ যেভাবে আমার জন্য দুআ করেছেন তাতে আমি কৃতজ্ঞ।

Share This Post