Spread the love

ফিলিস্তিনের পবিত্র মসজিদুল আকসার পার্শ্ববর্তী ঐতিহাসিক ডোম অফ দা রক খ্যাত কুব্বাতুস সাখরাহ মসজিদ ভেঙ্গে ফেলার ঘোষণা দিয়েছে ইসরাইলের ইহুদি সন্ত্রাসীরা।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) পবিত্র আল আকসার পরিচালক শাইখ ওমর আল কিসওয়ানী এই বিষয়ে একটি বিবৃতি দেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, ফিলিস্তিনে অবৈধ বসতি স্থাপনকারী ইহুদিবাদীরা ডোম অফ দা রক খ্যাত কুব্বাতুস সাখরাহ ধ্বংসের ডাক দিয়েছে। অপরদিকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের কর্তৃপক্ষও তাদের সাথে তাল মিলিয়ে ডোম অফ দা রক খ্যাত কুব্বাতুস সাখরাহ‘র মাপঝোঁক করে যায়!

মসজিদুল আকসা এবং কুব্বাতুস সাখরাহ‘র (রক অফ দা ডোম) ভিতরে ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল যা কিছু করে গেছে, তাকে শাইখ ওমর আল কিসওয়ানী ইহুদিবাদীদের ভয়ংকর পদক্ষেপ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

এই বিষয়ে কিসওয়ানীর কাছে ব্যাখ্যা চাওয়া হলে ফিলিস্তিনের আল কুদস রেডিওকে তিনি বলেন, আমরা চরম উৎকন্ঠার সাথে মসজিদুল আকসার ভিতরে ইহুদিবাদী ইসরাইলের এধরণের আচরণ পর্যবেক্ষণ করেছি। এই মাপঝোঁকের পিছনে কি কারণ থাকতে পারে, আমরা সত্যিই তা জানি না। তবে আমাদের বিশ্বাস, কোনো বিদেশি প্রতিষ্ঠানের জন্য হয়তোবা মাপঝোঁক করে দিয়েছে তারা।

এছাড়াও আল কিসওয়ানী বলেন, করোনা মহামারীর অজুহাতে ফিলিস্তিনিদের উপর কঠোর নিয়মনীতি চাপিয়ে দেওয়া সহ ইহুদিবাদী ইসরাইল ও ফিলিস্তিনে অবৈধ বসতি স্থাপনাকারী ইহুদিবাদী সংস্থাগুলো আল আকসা মসজিদ নিয়ন্ত্রণকারী আওকাফ মন্ত্রণালয়ের ক্ষমতা খর্ব করতে কাজ করে যাচ্ছে।

তাছাড়া, মসজিদুল আকসা দায়ভার শুধুমাত্র ফিলিস্তিনি কিংবা জর্ডানিদের ঘাড়ে নয়, বরং বিশ্বের সকল মুসলিমের ঘাড়ে এর দায়দায়িত্ব রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এসময়, বিশ্বের সকল মুসলিম রাষ্ট্রের প্রতি উদ্দেশ্য করে আল কিসওয়ানী বলেন, পবিত্র মসজিদুল আকাসার জুডাইজেশন বা ইহুদিকরণ ঠেকাতে মুসলিম বিশ্বকে এখনই সম্মিলিতভাবে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে।

Share This Post