Spread the love

নতুন বছর উদযাপনে আতশবাজির ঝলকানি ও বিকট শব্দে মারা পড়লো শত শত পাখি।

যে ঘটনাকে ‘গণহত্যার’ সঙ্গে তুলনা করেছে প্রাণী অধিকার রক্ষার আন্তর্জাতিক সংগঠন আইওপিএ। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম স্কাই নিউজ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আতশবাজিতে অনেক পাখি প্রাণ হারালেও এদের বেশির ভাগই স্টার্লিং পাখি। ঠিক কী কারণে বিপুল সংখ্যক পাখি মারা গেল, সে বিষয়ে এখনো কোনো ব্যাখ্যা দেয়নি দেশটির সরকার।

তবে গাছগাছালি অঞ্চলে ব্যাপক হারে আতশবাজি পোড়ানোর কারণে পাখিদের এই পরিণতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে দাবি করছে আইওপিএ।

সংগঠনের মুখপাত্র লোরডানা ডিজিলিও বলছেন, তারা ভয় থেকে মরতে পারে। বিকট শব্দ শুনে সবাই একসঙ্গে আকাশে উড়েছে।

একে-অপরের সঙ্গে ধাক্কা খেয়েছে, জানালায় গিয়ে পড়েছে, বিদ্যুতের তারে বেঁধেছে। ভুলে গেলে চলবে না, তারা হার্ট-অ্যাটাকেও মারা যেতে পারে।

অথচ করোনার প্রকোপ ঠেকাতে রোমে আতশবাজি নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। রাত দশটা পর্যন্ত শহরে কারফিউ ছিল। এই ঘটনার পর প্রাণীদের সুরক্ষার জন্য আতশবাজির বিক্রি নিষিদ্ধের আহ্বান জানিয়েছে আইওপিএ-এর ইতালিয়ান শাখা।

 

Share This Post