Spread the love

গত ২৪ নভেম্বর ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন জামালপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. ফরিদুল হক খান দুলাল। সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ এর প্রয়াতের পর তাকে গত ২৫ নভেম্বর ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

এরপর আজ রবিবার (২৯ নভেম্বর) সচিবালয়ে প্রথম অফিস করতে আসেন তিনি। দায়িত্বের প্রথম দিনই সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন ধর্ম-প্রতিমন্ত্রী। এসময় তার বক্তব্যের মাঝে ছিলো ‘ইনশাআল্লাহ’ বাক্য।

সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ধর্ম-প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ইনশাআল্লাহ! মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন তা সততার সঙ্গে পালন করবো।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে অর্পিত দায়িত্ব পালন করবো। এ ক্ষেত্রে সবার আন্তরিক সহযোগিতা চাই। আমি বিশ্বাস করি, সবাই মিলে সততা, নিষ্ঠা ও দেশপ্রেম নিয়ে কাজ করলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে পারবো, ইনশাআল্লাহ।’

সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নূরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানসহ সব সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্প্রীতি গড়ে তোলা। ধর্মীয়, সামাজিক ও মানবিক অধিকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ক্ষুধা ও দারিদ্র‌্যমুক্ত সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করা।’

তিনি সাংবাদিকদের জানান, প্রধানমন্ত্রীর সঠিক নির্দেশনার আলোকে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে হজ ব্যবস্থাপনার যুগান্তকারী উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন, সারাদেশে মডেল মসজিদ নির্মাণ, মঠ-মন্দির, প্যাগোডা সংস্কার ও উন্নয়ন; মসজিদ, মন্দির, প্যাগোডাভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি সফলভাবে বাস্তবায়িত হচ্ছে।

ফরিদুল হক খান বলেন, ‘আগামী দিনে আপনাদের সবার সহযোগিতায় ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করতে চাই। এ ক্ষেত্রে আমি আপনাদের আন্তরিক সহযোগিতা পাবো বলে বিশ্বাস করি।’

Share This Post