Spread the love

উপম’হাদে’শের কিংব’দন্তি অ’ভি’নেতা সৌমি’ত্র চট্টো’পাধ্যা’য় মা’রা গে’ছেন। রোববার

(১৫ নভে’ম্বর) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে ক’লকাতার বেলভিউ হাসপাতা’লে চিকিৎসা’ধীন অব’স্থায় শেষ নি’শ্বা’স ত্যাগ করেন তিনি।

বেলভি’উ ‘হাসপাতাল তার মৃ’ত্যু’র খবরটি সাড়ে ১২টার দিকে নি’শ্চিত ক’রেছে। মৃ’ত্যু’কালে তার ব’য়স হয়ে’ছিল ৮৫ বছর।

ওপার বাংলার সিনেমা’র বর্ষীয়ান এই অ’ভিনেতা ক’রো’নায় আ’ক্রা’ন্ত হয়ে গত ৬ অক্টোবর হাস’পাতা’লে ভর্তি হয়েছিলেন। এরপর কয়েক দফায় তার শা’রীরি’ক অব’স্থার

অবনতি ও উন্ন’তির খবর পাওয়া যায়। ক’রো’না থেকে মুক্ত হয়েছিলেন সৌ’মিত্র। তবে অন্যা’ন্য জটিল রো’গের কাছে পরা’স্ত হয়ে আজ পৃ’থিবী থেকে বি’দায় নিলেন এই কিংব’দন্তি।

চিকিৎস’করা জানি’য়েছিলেন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় করো’নার সঙ্গে একাধিক রোগে ভু’গছিলে’ন। তিনি প্র’স্টেট ক্যান’সারে আ’ক্রা’ন্ত ছিলে’ন। এটা নতুন করে ছ’ড়িয়ে

প’ড়ে’ছিল ফুসফু’স ও মস্তিষ্কে। মূত্র’থলি’তেও সংক্র’মণ হয়েছিল তার। এতকি’ছুর স’ঙ্গে এই বা’র্ধক্যে তার শরীর ল’ড়া’ই করে উঠতে পারছিল না।

প্রসঙ্গত, সৌ’মিত্র চট্টো’পাধ্যায় ১৯৩৫ সালে জন্ম’গ্রহ’ণ ক’রেন। তিনি এ’কাধা’রে ছিলেন প্রযোজ’ক, গল্প’কার, কবি, আ’বৃত্তি’কার। ম’ঞ্চেও দু’র্দা’ন্ত একজন অ’ভি’নেতা ছিলেন।

পেশা’জীবন শুরু ক’রেছেন ভ’য়েস আ’র্টিস্ট হিসেবে। পরে সি’নেমা’র জন্য ডাক পান ১৯৫৯ সালে, অস্কা’রজ’য়ী পরিচা’লক সত্যজিৎ রায়ের ‘অ’পুর সং’সার’ সি’নেমা’র জন্য।

সে ছবি দি’য়েই অ’ভি’নয়’জগতে পা রাখেন। এরপর তি’নি সত্যজিৎ রায়ের ৩৪টি সিনেমা’র ১৪টিতে অ’ভিন’য় করেছেন। তার অ’ভিনীত চরি’ত্রগু’লোর মধ্যে স’বচেয়ে জনপ্রিয় ‘ফেলুদা’।

সত্যজিৎ ছাড়াও তিনি মৃণা’ল সেন, তপন সিংহ, অজয় ক’রের মতো কা’লজয়ী

নি’র্মাতাদের সঙ্গে কাজ করে’ছেন। তার নায়ি’কা হিসেবে দেখা গেছে সুচিত্রা সেন, সু’প্রিয়া দেবী, শর্মি’লা ঠাকুর, অ’প’র্ণা সেন, মাধবী মুখার্জি, তনু’জা’সহ অনে’ক কিংব’দন্তি অ’ভি’নে’ত্রীকে।
সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

ভা’রত সর’কার সৌমি’ত্র চট্টোপাধ্যা’য়কে ২০০৪ সালে ‘পদ্মভূষণ’ ও ২০১২ সালে

‘দাদা’সাহে’ব ফা’লকে পুর’স্কার’ দিয়ে স’ম্মানিত করে’ছে। এছাড়াও ২০১৭ সা’লে তিনি ফ্রান্স সরকা’র কর্তৃক ‘লিজিওন অব অনার’ লাভ করেন।

পশ্চি’মবঙ্গ সরকা’র একই বছ’রে তাকে ‘ব’ঙ্গ’বিভূষণ’ পুর’স্কার প্রদান করে। তবে ২০১৩ সালে এই পু’রস্কার প্র’ত্যা’খ্যান করেছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

Share This Post