Spread the love

হিজড়া জনগোষ্ঠীর ধর্মীয় শিক্ষা দিতে রাজধানী ঢাকার কামরাঙ্গীর চরের লোহার ব্রিজ এলাকায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ‘দাওয়াতুল কুরআন তৃতীয় লিঙ্গের মাদরাসা’। অবহেলিত এই জনগোষ্ঠীর জন্য শিক্ষাব্যবস্থা চালু করায় শুরু থেকেই প্রশংসিত হয়েছে মাদরাসা সংশ্লিষ্টরা।

মাদরাসাটি প্রতিষ্ঠা করেছেন ঢালকানগর পীর ও মদিনা মুনাওয়ার শায়েখ সাইদুর রহমান আল মাদানীর খলিফা মাওলানা মুহাম্মাদ আব্দুর রহমান আজাদ।

এবার হিজড়াদের দ্বীন শেখানোর পাশাপাশি তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থার বিষয়টিও চিন্তা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মাদরাসার প্রধান শিক্ষক মাওলানা আব্দুল আজিজ হোসাইনী।

আওয়ার ইসলামকে তিনি বলেন, করোনাকালীন সময়ে মাদরাসাটির প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা মুহাম্মাদ আব্দুর রহমান আজাদ হিজড়াদের জন্য দ্বীনী প্রতিষ্ঠান তৈরীর লক্ষ্যে আমাদের নিয়ে একটি জরুরী পরামর্শ করেন। এরপর আব্দুর রহমান আজাদসহ আমরা একটি জামাত হিজড়াদের একজন গুরুমাতা থাকে তার কাছে যাই। সেখানে গিয়ে তাদের জন্য মাদরাসা প্রতিষ্ঠার বিষয়টি খুলে বললে তারা সম্মতি প্রকাশ করেন এবং এক পর্যায় আমরা হিজরাদের জন্য দাওয়াতুল কুরআন তৃতীয় লিঙ্গ মাদরাসা তথা হিজড়াদের মাদরাসা প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হই।

আব্দুল আজিজ বলেন, আমরা হিজড়াদেরকে দ্বীন শেখানোর পাশাপাশি তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থার বিষয়টিও চিন্তা করছি। আল্লাহ যদি তৌফিক দেন তাহলে অচিরেই হিজড়াদের কর্মসংস্থান তৈরী করে তাদেরকে মানব সম্পদে রুপান্তরিত করা হবে। ইনশাআল্লাহ।

তিনি আরও বলেন, আমরা পথ শিশুদের নিয়েও কাজ করছি। আমাদের একটি জামাত কমলাপুর রেলস্টেশনের ছিন্নমূল শিশুদের নিয়মিত কুরআন ও দ্বীনী শিক্ষা দিচ্ছে।

Share This Post