Spread the love

কলকাতায় কালীপূজা উদ্বোধনের আগে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান বলেছেন, এ জায়গাটা আমার কাছে ঘরের মতোই মনে হয়। তাই আপনারা আমাকে ডাকলে আমি কখনও নিষেধ করি না।

বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) উত্তর কলকাতার কাঁকুড়গাছি ‘আমরা সবাই সার্বজনীন শ্যামাপূজা’ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের সময় সাকিব এসব কথা বলেন।

কলকাতার কাঁকুড়গাছি আমরা সবাই সার্বজনীন শ্যামাপূজার মূল উদ্যোক্তা তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক পরেশ পালের পূজা বলে পরিচিত। এবার তাদের পূজা ৫৯তম বর্ষে পদার্পণ করেছে।

তবে বিধায়ক পরেশ পাল প্রতিবছর একাধিক সামাজিক অনুষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত থাকেন। প্রতিবছর এই অঞ্চলে বিশাল আকারে ইলিশ উৎসব হয়। যে ইলিশ তার একক দায়িত্বে আসে বাংলাদেশ থেকে। এবার উৎসবে ইলিশ এসেছিল ৪শ কেজি। এছাড়া তার নেতৃত্বে গণ বিয়ের আয়োজন হয় কাঁকুড়গাছিতে।

সমাজে দুস্থ ও প্রান্তিক ইচ্ছুক বিবাহযোগ্যদের একত্রিত করে নিজ খরচে তাদের বিয়ে দেওয়া হয়। সেই বিধায়ক এবার অলরাইন্ডার সাকিবকে এনে রীতিমতো চমক দিলেন কলকাতাবাসীকে।

সাকিবের সান্নিধ্যে পেতে কলকাতার দূরদূরান্ত থেকে জড়ো হয়েছিলেন পরেশ পালের এই পূজামণ্ডপে। হাজারো মোবাইলের ফ্ল্যাশ লাইট জ্বলে উঠেছিল সাকিবকে চোখের সামনে পেয়ে।

এসময় সাকিব আল হাসান বলেন, ‘এ জায়গাটা আমার কাছে ঘরের মতোই মনে হয়। তাই আপনারা আমাকে ডাকলে আমি কখনও নিষেধ করি না। আপনারা আমার জন্য প্রার্থনা করবেন এবং আমাকে সমর্থন দিয়ে যাবেন।
পাশাপাশি সবাই একসঙ্গে দুই বাংলার সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করবেন।

আয়োজক পরেশ পাল বলেন, ‘এই করোনার সাময়ে সাকিব আল হাসান আমাদের সময় দেয়ায়, পশ্চিমবঙ্গের সাধারণ মানুষ এবং আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা দি’র পক্ষ থেকে তাকে অনেক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে কলকাতার মেয়র ফিরাদ হাকিম, আদ্যপীঠ মন্দিরের তরফে মুরালি ভাই, উপ-দূতাবাস প্রধান তৌফিক হাসান ও উপ-দূতাবাসের কর্মকর্তাসহ বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন।

Share This Post