Spread the love

শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) বাদ জুম’আ বায়তুল মোকাররমে মূর্তিবিরোধী মিছিলে পুলিশের হামলা ও ১৮ জনকে আটকের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ ও সেক্রেটারী মাওলানা এবিএম জাকারিয়া।

আজ শনিবার (২৮ নভেম্বর) সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, মূর্তি বিরোধী মাদরাসার ছাত্র-জনতার কর্মসূচিতে পুলিশী হামলা মেনে নেয়া যায় না। অবিলম্বে গ্রেফতারকৃত ১৮জন মাদরাসা ছাত্র এবং ঈমানদার মুসল্লিদের মুক্তির দাবি জানাচ্ছি।

নেতৃদ্বয় বলেন, শাহবাগ ও টিচাগাংয়ে ওলামায়ে কেরামের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগ, যুবলীগকে মাঠে নামিয়ে দিয়ে সরকার অত্যন্ত খারাপ দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। জণগণ গর্জে উঠলে ছাত্র-যুবলীগ সরকারকে রক্ষা করতে পারবে না। ছাত্র-যুবলীগ সারাদেশে ধর্ষণের রাজত্ব কায়েম করেছে। আর ওলামাদের বিরুদ্ধে এই ধর্ষণলীগ নামিয়ে দিয়ে সরকার অত্যন্ত খারাপ নজির স্থাপন করেছে।

নেতৃদ্বয় বলেন, শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশের হামলা স্বভাবতই প্রশ্ন উঠে, তাহলে কি সরকার নাস্তিক মুরতাদ ও শয়তানী শক্তির পক্ষে অবস্থান নিচ্ছে? ওলামায়ে কেরামের মুর্তি ও ভাস্কর্যের বিষয়ে এতো খোলামেলা বিশ্লেণের পরেও কোন মুসলমান মূর্তি বা ভাস্কর্যের পক্ষে অবস্থান নিতে পারে না। সরকারকে মনে রাখতে হবে, বঙ্গবন্ধুর চামড়া দিয়ে যারা ঢুকঢুকি বাজাতে চেয়েছিল, আজ তারাই আপনার ডানে-বামে ঘাপটি মেরে বসে আছে, তারাই আপনাকে বিপদে ফেলবে। ওলামায়ে কেরাম কখনও এধরণের অন্যায় কাজ করবে না। ভাস্কর্যকে সামনে রেখে ওলামাদের বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থান সুখকর নয়।

তারা আরো বলেন, অনেক বুদ্ধিজীবী মূর্তি বিরোধীদের বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা বিরোধী হিসেবে দাড় করানোর অপচেষ্টা করছেন। আপনাদের জানা উচিত, আমরা আপনাদের মতো কথিত ভন্ড দেশপ্রেমিক নই। দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও বঙ্গবন্ধু আমাদের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ইতোপূর্বে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা হাইকোর্টের সামনে থেকে থেমিসের মুর্তি অপসারণে যেমন আন্দোলন করেছে, এখন ধোলাইপাড়ে নতুন মুর্তি স্থাপনসহ সারাদেশে নির্মিত মানবমূর্তির বিরোধিতা করছে। এখানে কোন নির্দিষ্ট ব্যক্তি টার্গেট নয়, বরং ইসলামে নিষিদ্ধ সকল প্রাণী তথা মানবমুর্তির অপসারণ আমাদের ঈমানী দাবী। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মুসলিম দেশ বাংলাদেশ মূর্তির দেশ হিসেবে বিশ্বে দূর্নাম কামাবে, সেটা মুসলমানরা মেনে নিতে পারে না।

Share This Post