Spread the love

হাফিজুর রহমান (১৪) নামের এক কিশোর রিকশাচালককে পিটিয়ে হাত ভেঙে দিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বাগানবাড়ি নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

আহত রিকশাচালক কিশোর হাফিজুর রহমান উপজেলার লামাতাশি ইউনিয়নের তড়লী গ্রামের আবদুস ছামাদের ছেলে।

ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন পুলিশের কবল থেকে তাকে উদ্ধার করে বাহুবল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। এরপর বুধবার বিকালে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। ডাক্তার জানিয়েছেন অতিরিক্ত আঘাতে তার হাত ভেঙে গেছে।

আরও খবর পড়ুন :

মহানবী (স.)-কে নিয়ে বাজে মন্তব্য করায় তাসলিমা নাসরিনকে জুতাপেটা করল জনতা

ধর্মের সঙ্গে বিশেষ করে ইসলাম ধর্মের সঙ্গে লেখিকা তসলিমা নাসরিনের বিরোধ দীর্ঘদিনের। মূলত সেই কারণেই যাবতীয় প্রতিকূলতার সৃষ্টি হয়েছে তার জীবনে। তসলিমাকে ছাড়তে হয়েছে নিজের জন্মভূমি বাংলাদেশ। একই কারণে বিতর্কিত এই লেখিকার ঠাঁই মেলেনি গঙ্গাপারের শহর কলকাতায়।

তবে সম্প্রতি ইসলামের একটি বিষয় তসলিমার বিশেষ পছন্দের বলে জানিয়েছেন লেখিকা।

আর অল্প কিছুদিনের মধ্যেই শুরু হতে যাচ্ছে মুসলমানদের জন্য পবিত্র বলে স্বীকৃত রমজান মাস। সেই উপলক্ষে বিশ্বজুড়ে শুরু হয়ে গিয়েছে প্রস্তুতি। এই সময়ে অনেক দুঃস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়ায় মুসলিম সম্প্রদায়ের উচ্চবিত্ত মানুষেরা। এটাই নিয়ম ইসলামের।

দীর্ঘদিন ধরে এমনই চলে আসছে। রীতি অনুসারে, এই কাজে বিপুল পূণ্যার্জন হয়। এবং সর্বোপরি স্বর্গলাভ হয়।

এই বিষয়ে নিজের অভিমত প্রকাশ করে ট্যুইট করেছেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন। তিনি লিখেছেন, “ধনি মানুষেরা গরিবদের খাবার, অর্থ এবং জামাকাপড় দান করে। ইসলাম ধর্মের যাবতীয় রেওয়াজের মধ্যে এই একটিমাত্র বিষয় আমার পছন্দের” তবে একই সঙ্গে এই দান খয়রাতকে স্বর্গলাভের উদ্দেশ্য বলেছেন তিনি।

তিনি এই টুইটে আরো লিখেন- ‘সমাজের দারিদ্র দূরীকরণ নিয়ে কেউ চিন্তা করে না,” বলে অভিযোগ করেছেন তসলিমা।

Share This Post