খাবার দিতে দেরি করেছে প্রায় ১ ঘণ্টা। প্রশ্ন করলে এবং খাবার ফিরিয়ে দিতে চাইলে শুরু হয় বচসা। তারপরই ঘু’’সি মে’রে নাক ফা’টি’য়ে দেয় মহিলার। গোটা ‘ঘ’টনার ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন মহিলা। যা ভাইরাল হতেই নড়ে চড়ে বসে Zomato। টুইটার মারফত সংস্থা থেকে ক্ষমা চাওয়া হয়

ঠিক কী ঘটেছিল?

মহিলার নাম চন্দ্রানী। তিনি Zomato মারফত খাবার অর্ডার করেন। দুপুর ৩.৩০ নাগাদ খাবার ডেলিভারি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু খাবার আসতে ৪.৩০ হয়ে যায়। এই দীর্ঘ সময়ে চন্দ্রানী Zomato এক্সিকিউটিভের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তিনি দাবি করেন, তাঁর খাবার ফ্রি করে দেওয়া হোক নয়ত ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হোক।

ঘণ্টা খানেক পরে খাবার নিয়ে পৌঁছন Zomato delivery boy। পৌঁছে খুব অসভ্যের মতো ব্যবহার করেন তিনি, অভি’যোগ চন্দ্রানীর। ডেলিভারি বয়কে দাঁড়াতে বলেন তিনি। সেই সময় ফ্রিতে বা খাবার ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব কিনা সে বিষয়ে কথা বলছিলেন তিনি। কিন্তু ডেলিভারি বয় দাঁড়াতে রাজি হয় না এবং খাবার ফিরিয়ে নিয়ে যেতে চান না। এরপরই শুরু হয় বচসা।Zomato delivery boy ঘু’’সি মে’রে নাক ফা’টি’য়ে’ দেয় গ্রাহক চন্দ্রানীর। গল গল করে র’’ক্ত বেরিয়ে আসে।

জানা গিয়েছে, তাঁর নাকের হা’ড় ভে’’ঙে গিয়েছে। অ’পা’রেশন করতে হয়েছে।

ঘটনায় জোম্যাটো জানিয়েছে, “আমরা কীভাবে ক্ষ’মা চাইব বুঝতে পারছি না। ঘটনায় আমরা খুবই দুঃ’খি’ত। বিশ্বাস করুন আমাদের খাবার ডেলিভারি ব্যবস্থা এতটাও খা’রাপ নয়। স্থানীয় পুলিসে জানান হয়েছে। অ’পরা’ধী শা’’স্তি পাবেন। আপনার চিকিৎসার জন্য যা যা সহযোগিতার প্রয়োজন zomato করতে প্রস্তুত’।

Share This Post