Spread the love

” চিরকালের জন্য অভিনয় ও বিনোদন জগত থেকে  বিদায় নিয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী সানা খান। তিনি নিজেই তার ইনস্টাগ্রামে “এই ঘোষণা করেন ।”

নিজ ধর্মকে অনুসরণ, করে সেই মোতাবেক কাজ করার জন্যই তার এই বিদায় নেওয়া। এখন থেকে তিনি আমৃত্যু ধর্মের জন্য কাজ করতে “চান।
পৃথিবীতে মানুষের” আসা মানেই কি অর্থ ও খ্যাতির পিছনে দৌঁড়ানো?প্রশ্ন ছুড়ে দেন সানা।”
তিনি তার ইনস্টাগ্রামে পোস্টে লেখেন, জীবনের  গুরুত্বপূর্ণ অবস্থায়” দাঁড়িয়ে আমি আপনাদের সাথে কথা বলছি।

বহু বছর যাবত আমি বিনোদন এবং অভিনয় “জগতে ছিলাম। ঈশ্বরের দয়ায় অনেক খ্যাতি, অর্থ ও ভক্তদের থেকে অসামান্য ভালোবাসা পেয়েছি। এজন্য আমি চিরকাল কৃতজ্ঞ থাকব।

বিগত, কিছুদিন হল একটা বিষয় বার বারই মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছিল। এটা নিয়ে অনেক ভেবেছি। এই পৃথিবীতে মানুষের আসার উদ্দেশ্য কি শুধু অর্থ ও খ্যাতির পিছনে দৌঁড়ানো? দরিদ্র ও অসহায়দের জন্য কাজ করা কি আমাদের “কর্তব্য নয়?
একটা” প্রশ্নের উত্তর আমি খুঁজে’ বেড়াচ্ছি। প্রশ্নটি হচ্ছে যে কোন মানুষের কি ভাবা উচিত নয় যে তিনি যেকোনও মুহূর্তে মারা যেতে পারেন? মৃত্যুর পরে আমার কী হতে পারে?

সানা ‘তার পোস্টে আরও লেখেন, এসব প্রশ্ন যখন মনে দীর্ঘ দিন যাবৎ ঘুরপাক খাচ্ছিল তখন আমি আমার ধর্মের” মধ্যে এর উত্তর খুঁজতে গেলে তখন বিষয়টা ভাল ভাবে বুঝতে পারি।

এই ‘পৃথিবীতে জন্ম নেওয়া এমনি এমনি নয়। জন্মের পর থেকে ” মৃত্যু পরবর্তী জীবনের জন্য কিছু করা এবং উন্নতির করা জন্য করা দরকার।
একজন বান্দার উচিত সবসময় অর্থ “ও খ্যাতির পিছনে না ছুটে তার সৃষ্টিকর্তার দেওয়া নির্দেশমতো “জীবন পরিচালনা করা এবং পাপ হয় এমন কাজ বর্জন করে বা পাপজনক রাস্তা ছেড়ে দিয়ে সৃষ্টিকর্তার নির্দেশিত পথে হাঁটা “উচিত।

সাবা বলেন, এসব” কিছু ভেবে আমি আজ “ঘোষণা করছি যে, আজ থেকে বিনোদন জগত হতে সারা জীবনের জন্য মতো” বিদায় নিলাম।
এখন থেকে মানবতার জন্য কাজ করে যাব এবং প্রভূর দেওয়া নির্দেশ মেনে চলব।
সবাইকে তার জন্য, মহান আল্লাহর কাছে প্রার্থনা” করতে বলেন। যাতে মহান আল্লাহ তাকে কবুল করেন এবং ভালো কাজের অনুমতি দেন।

বিনোদন জগত নিয়ে তার সঙ্গে. আর কোন আলোচনা না করতে সকলকে অনুরোধ করেন সানা।

Share This Post