Spread the love

কুড়িগ্রাম পৌরসভা নির্বাচনে ৯টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৬০ জন প্রার্থীর মধ্যে তিনি একমাত্র প্রার্থী যার পোষ্টারে কোনও ছবি নেই। আর পোস্টারও ছিল দু’একটি। পোস্টার না ছাপানো এবং ছবি না থাকার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ছবি নয় নামেই পরিচয়।’

১৯৮১ সালে প্রথমবারের মতো বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন কমিশনার রোস্তম আলী তোতা। এরপর নির্বাচিত হওয়ার জন্য তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলে নিয়ে তার সংসার বড় মেয়ের বিয়ে হয়েছে। অন্য দু’জন স্নাতকের শিক্ষার্থী। পৌর এলাকার মিস্ত্রিপাড়ায় ৩ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা রোস্তম আলী তোতা থাকেন ১২ শতক জমির উপর টিনশেড বাড়িতে। অর্ধেক অংশে বাড়িভাড়া বাবদ মাসিক আয় ১২ হাজার টাকা আর কাউন্সিলর হিসেবে সম্মানী ভাতা পান ৫ হাজার এ দিয়েই চলে যায় তার সংসার। এছাড়া তিনি মুকুল ফৌজ নামে একটি শিশু সংগঠনের সাথে জড়িত। সেখানেই তিনি শিশু, নারী, পুরুষ, বৃদ্ধ সবার সঙ্গে হৃদ্যতা গড়ে তুলেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি মানুষের ভালোবাসা অর্জন ছাড়া জনপ্রতিনিধি হওয়া সম্ভব নয়। তাই মানুষের আস্থা ও ভালোবাসা অর্জনে নিবেদিত প্রাণ হয়ে কাজ করি।’

Share This Post