Spread the love

তারবিয়াতুল উম্মাহ মাদরাসার ছাত্র সংসদ লাজনাতুত তারবিয়ার উদ্যোগে তিনদিন বার্ষিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) মাগরিবের পর পুরস্কার বিতরণী ও নাশিদ সন্ধ্যার মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি শেষ হয়।

অনুষ্ঠানে হিফজুল কুরআন, হিফজুল হাদীস, ইস্যুভিত্তিক বক্তব্য, বিতর্ক ও হামদ-নাতসহ বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ী প্রায় নব্বইজনকে পুরস্কৃত করা হয়।

লাজনার তত্ত্বাবধায়ক মাওলানা জাহিদুল আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন- মাদরাসার পরিচালক মাওলানা মুহাম্মাদ মামুনুল হক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষার্থীদের তিনি বলেন, তোমাদের মানসিকতা থাকতে হবে- আমরা পড়াশোনা করছি আগামীদিনে এই দেশ ও জাতীকে নেতৃত্ব দিয়ে পরিচালিত করতে, একটা সুন্দর সমাজ গঠনের কারিগর হিসেবে- সমাজকর্মী হিসেবে ভূমিকা রাখব। নিজের ব্যক্তিগত সুখ-সমৃদ্ধির চিন্তা নয়; বরং দ্বীন ও মিল্লাতের স্বার্থে আমরা আমাদের ভবিষ্যৎকে কুরবানি করব। একদিকে ত্যাগ-কুরবানির মানসিকতা থাকতে হবে তেমনি থাকতে হবে যোগ্যতা। অযোগ্যের ত্যাগ-কুরবানীর দ্বারা বড় কিছু হয় না। ত্যাগ-কুরবানী ও যোগ্যতার মাধ্যমেই আগামীর নেতৃত্ব গড়ে উঠবে।

তিনি আরও বলেন, শায়খুল হিন্দ মাহমুদুল হাসনি দেওবন্দী রহ. সারা ভারতবর্ষে ‘সামারাতুত তারবিয়াহ’ গঠনের মধ্যমে একটি বিপ্লবের স্বপ্ন পূরণ করেছিলেন। জামিয়াতুত তারবিয়ার ছাত্ররা শায়খুল হিন্দের সেই স্বপ্ন পূরণ করবে ইনশা আল্লাহ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মাওলানা আবুল হাসানাত জালালী, বার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকমের বিভাগীয় সম্পাদক মাওলানা এনায়েতুল্লাহ, জামিয়া আজহারের পিএইচডি গবেষক মাওলানা লুৎফে এলাহী ও মাওলানা মুহিব্বুল্লাহ মাসনুন।

Share This Post