Spread the love





মানবতার মুক্তির দূত মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে ফরাসি ম্যাগাজিন শার্লি এবেদোয় অবমাননাকর কার্টুন চাপানোর পর সৃষ্ট পরিস্থিতিতে ফ্রন্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন যে ইসলামবিদ্বেষী বক্তব্য দিয়েছে তার পক্ষে অবস্থান নিয়েছে ইহুদীবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেওয়া সংয়ুক্ত আরব আমিরাত।

জার্মান দৈনিক ডাই ওয়েল্ট-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আমিরাতের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনোয়ার গারগাশ ম্যাকরনের পক্ষে সমর্থন দিয়ে বলেন, মুসলমানদের আরো বেশি ‘সংমিশ্রণ’ দরকার। প্রেসিডেন্ট ম্যাকরন কী বলছেন তা মুসলমানদের তা খেয়াল করে শোনা উচিত। পাশ্চাত্যে তিনি মুসলমানদের একঘরে করতে চাননি বরং তিনি যা বলেছেন তা সম্পূর্ণ সঠিক। পশ্চিমা সমাজে মুসলমানদেরকে আরো ভালোভবে মিশতে হবে।



ফ্রান্সে মুসলমানদের বসবাসকে ফরাসি প্রেসিডেন্ট খুব একটা ভালো চোখে দেখছেন না- এমন ধারণা আনোয়ার গারগাশ নাকচ করে দেন।

গত দুই মাসে বিভিন্ন সময় ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাকরন বিশ্বের ২০০ কোটি মুসলমানের ধর্ম ইসলামকে আক্রমণ করেছেন।
গত সেপ্টেম্বর মাসে তিনি মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে অবমাননাকর কার্টুন ছাপানোর পক্ষে বক্তব্য রাখেন। এছাড়া, গত ২ অক্টোবর ম্যাকরন দাবি করেন, সারা বিশ্বে ইসলাম সংকটের মধ্যে রয়েছে। ফ্রান্সের মূল্যবোধের সঙ্গে মাননসই করে তিনি ইসলামের সংস্কার করবেন বলেও ঘোষণা করেন।


Share This Post