Spread the love

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে শনিবার (১৪ নভেম্বর) মাঠে নামবে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। সেলেসাওদের প্রতিপক্ষ ভেনেজুয়েলা। 

কোভিডের কারণে ব্রাজিল দল থেকে ছিটকে যাওয়ার তালিকায় নতুন যুক্ত হয়েছেন ডিফেন্ডার গ্যাব্রিয়েল মেনিনো। সেরা স্কোয়াড না পেলেও, জয়ের প্রত্যাশাই করছেন ব্রাজিল কোচ তিতে। সাও পাওলোর এস্তাদিও দো মোরুম্বিতে ম্যাচটি শুরু হবে সকাল সাড়ে ৬টায়। 

কোভিড আর ইনজুরি, এই দুইয়ে বিপর্যস্ত ব্রাজিল স্কোয়াড। নেইমার-কৌতিনহো-ক্যাসেমিরোসহ ৬ ফুটবলার ছিটকে গেছেন আগেই। তালিকা হয়েছে দীর্ঘ। করোনা নেগেটিভ হয়ে ক্যাম্পে যোগ দিলেও, ম্যাচের আগে করা টেস্টে ডিফেন্ডার গ্যাব্রিয়েল মেনিনোর শরীরে শনাক্ত হয় কোভিড।

দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্যদের হারালেও বিচলিত নন ব্রাজিল কোচ তিতে। মেনিনোর বদলি হিসেবে এখনো কাউকে দলে ডাকেননি। তবে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে কেমন হবে একাদশ, ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে দিয়েছেন তার আভাস।

ইনজুরি থেকে সেরে উঠলেও একাদশে ফিরতে গোলরক্ষক অ্যালিসনকে অপেক্ষা করতে হবে।  গোলপোস্টে এডারসনেই ভরসা তিতের। অ্যালান, এভারটন, গ্যাব্রিয়েল জেসুসরাও খেলবেন মূল একাদশে। ইনজুরি আর কোভিড নিয়ে কিছুটা বিপাকে থাকলেও, ম্যাচের আগে দলের ইতিবাচক মানসিকতার বার্তাই দিলেন স্বাগতিক কোচ।

ব্রাজিল কোচ তিতে বলেন, ‘কোভিডের কারণে আমাদের নানা চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। আমরা বাড়তি ফুটবলার নিয়েই অনুশীলন শুরু করেছিলাম। কয়েকজন বাদ পরলেও, যারা দলে আছে তাদের জন্য এটা বড় সুযোগ। তবে এটাও সত্য আমরা সবাই ঝুঁকিতে আছি। করোনা মহামারী শেষ হয়নি। তাই আমাদের সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।’

ঝুঁকির বিষয়টা বিবেচনায় আছে ব্রাজিল দলের চিকিৎসকেরও। দলের বাকি সদস্যরা সুস্থ থাকলেও, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়ে কড়াকড়ি আরোপ করেছে ব্রাজিল কর্তৃপক্ষ।

ব্রাজিল ফুটবল দলের চিকিৎসক ডা. রদ্রিগো লাসমার জানান, ‘কোভিড থেকে রক্ষার জন্য সবধরনের প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থাই নেয়া হয়েছে। উরুগুয়ে যাওয়ার আগে আবারো দলের সবার কোভিড টেস্ট করানো হবে। সে সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব, মাস্ক পড়াসহ স্যানিটাইজেশনকেও আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি।’

ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে ব্রাজিল মাত্র দুটি ম্যাচে হারলেও সেগুলো ছিলো প্রীতি ম্যাচ। গেলো এক যুগ সেলেসাওদের বিপক্ষে তাদের কোনো জয়ও নেই। হারের বৃত্ত ভাঙার সঙ্গে ভেনেজুয়েলা চাইবে এবারের বাছাইপর্বে প্রথম জয় তুলে নিতে।

Share This Post