আগামীকাল বুধবার থেকে গণপরিবহন চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে রাজধানীসহ মহানগরগুলোতে চলবে গণপরিবহন। তবে পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে দূরপাল্লার বাস।

মঙ্গলবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সেতুমন্ত্রী বলেন, লকডাউন পরিস্থিতিতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ও জনসাধারণের যাতায়াতে দুর্ভোগের বিষয়টি বিবেচনায় সরকার গণপরিবহনে চলাচলের বিষয়টি শর্ত প্রতিপালন সাপেক্ষে পুনর্বিবেচনা করে অনুমোদন দিয়েছেন। ঢাকা, চট্টগ্রাম মহানগরসহ গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, রাজশাহী, খুলনা,সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন এলাকাধীন সড়কে সকাল ৬ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত অর্ধেক আসন খালি রেখে গণপরিবহন চলাচল করবে।

তবে পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত দূরপাল্লার গণপরিবহন চলাচল যথারীতি বন্ধ থাকবে। বুধবার থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকবে।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে আজ মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা

স্বাস্থ্যবিধি মেনে আজ মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা

পশ্চিমবঙ্গের দ্বিতীয় পর্বের ভোটে বিক্ষিপ্ত সহিংসতা

পশ্চিমবঙ্গের দ্বিতীয় পর্বের ভোটে বিক্ষিপ্ত সহিংসতা

জুমার দিনের ৮ আমল

জুমার দিনের ৮ আমল

সুন্দরবনে মধু আহরণের মৌসুম শুরু

সুন্দরবনে মধু আহরণের মৌসুম শুরু

বর্ণিল আয়োজনে পর্দা উঠল বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের

বর্ণিল আয়োজনে পর্দা উঠল বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের

পর্যটকদের জন্য বন্ধ হলো সুন্দরবন

পর্যটকদের জন্য বন্ধ হলো সুন্দরবন
ইতিহাসের এই দিনে যা ঘটেছিল (২ এপ্রিল)
ইতিহাসের এই দিনে যা ঘটেছিল (২ এপ্রিল)
ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড ইনোভেশন এক্সপো শুরু
ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড ইনোভেশন এক্সপো শুরু
মেয়ে পটানো নয়, সম্মান করুন: শাহরুখ খান

মেয়ে পটানো নয়, সম্মান করুন: শাহরুখ খান

তিনি আরো জানান, প্রতি ট্রিপের শুরু এবং শেষে জীবাণুনাশক দিয়ে গাড়ি জীবাণুমুক্ত  করতে হবে। এছাড়া পরিবহন সংশ্লিষ্ট ও যাত্রীদের বাধ্যতামূলক মাস্ক পরা, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। কোনোভাবেই সমন্বয়কৃত ভাড়ার অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা যাবে না।

সড়ক পরিবহন মন্ত্রী করোনা সংক্রমণ বিস্তাররোধে সরকারের নির্দেশনাসমূহ যথাযথভাবে প্রতিপালনে পরিবহন মালিক শ্রমিক ও যাত্রীদের সহযোগিতা কামনা করেন।

Share This Post