Spread the love

ফেসবুকের এক টি পোস্টে দেখা যায় প্রবীণ দুই ব্যক্তি বিছানায় শুয়ে ও বসে কুরআন তেলাওয়াত করছেন। ফেসবুকে এমন একটি ছবি ভাইরাল হয়। ফেসবুক স্ট্যাটাসে লেখা-

‘সুবহানআল্লাহ্… স্বামী মুখস্থ কুরআন তেলাওয়াত করছেন আর স্ত্রী তা চেক করছেন ভুল হয় কিনা, এমন স্বামী স্ত্রী যদি প্রতিটি ঘরে ঘরে থাকতো তাহলে কতই না ভালো হতো!

ভিডিও তে দেখা যায়, ‘উভয় প্রবীণ ব্যক্তি সুরা হুজরাতের ১৩ নং আয়াতের অর্ধাংশ থেকে শুরু করে সুরা ক্বাফের বেশ কিছু আয়াত তেলাওয়াত করছেন।’

লোকটি এতই প্রবীণ যে, তিনি শুয়ে শুয়ে তেলাওয়াত করছেন আর বৃদ্ধা নারী তার পাশে বসেই কুরআন শরিফ দেখে তেলাওয়াত ধরছেন এবং শুনছেন। কোথাও কোথাও আয়াতাংশ ছুটে গেলে বৃদ্ধকে তা বলে দিচ্ছেন। এ দুই প্রবীণ ব্যক্তির দেশ পরিচয় জানা না গেলেও তারা যে দুনিয়ার সেরা সুখী মানুষ তা নিঃসন্দেহে অনুমেয়। তাদের তেলাওয়াতের দৃশ্য ও অবস্থা কুরআনে আল্লাহর সে ঘোষণাকেই স্মরণ করিয়ে দেয় যে-

‘আমি স্বয়ং এ উপদেশ গ্রন্থ অবতরণ করেছি এবং আমি নিজেই এর হেফাজতকারী।’

উভয় প্রবীণের কুরআন তেলাওয়াত এটাই প্রমাণ করে যে, আল্লাহ তাআলা পুরো কুরআনকেই মানুষের সিনায় হেফাজতের ব্যবস্থা করেছেন এবং কেয়ামত পর্যন্ত তা হেফাজত করেন। দুনিয়ার প্রতিটি মানুষই হোক কুরআন ধারক ও বাহক, যা তাকে দুনিয়া ও পরকালীন জীবনে সফলতা দান করবেন।

মহান আল্লাহ তাআলা কুরআনের এ দুই প্রবীণ ধারক বাহককে রহম করুন। আমিন।

Share This Post