বিশ্বের সর্ববৃহৎ মসজিদ নির্মাণের পরিকল্পনা করেছে মিসর সরকার। দেশটির নতুন প্রশাসনিক অঞ্চলে ৭৫০ মিলিয়ন পাউন্ড বাজেটে এটি নির্মাণ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

মিসরের প্রেসিডেন্টের মুকপাত্র বাসসাম রাদি মসজিদ স্থাপনার ছবিসংবলিত এক পোস্টে লিখেন, প্রশাসনিক রাজধানীর মসজিদটি বিশ্বের সর্ববৃহৎ মসজিদগুলোর একটি হবে। মসজিদের মিনার উচ্চতায় ১৪০ মিটার হবে। এতে এক লাখ সাত হাজার মুসল্লি একসঙ্গে নামাজ আদায় করতে পারবেন।
মসজিদটিতে থাকবে ‌অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য সুবিশাল হলরুম। ছেলেমেয়েদের কোরআন শিক্ষার জন্যও থাকবে বড় স্থান। এ ছাড়া প্রায় তিন হাজারের বেশি গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থাও এতে থাকবে।

অনেকে এ পরিকল্পনাকে অর্থের অপচয় বললেও অনেকে এটিকে বিশ্ব দরবারে তা মিশরের নামকে সমুন্নত করবে বলে জানান।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মসজিদ প্রকল্পের খবর প্রকাশের পর মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন অনেকে। তারা এটিকে সরকারি অর্থের অপব্যয় বলে মন্তব্য করেন। কারণ,

করোনা মহামারিতে মিসরের অর্থনৈতিক দুরবস্থায় সুচিকিৎসার অভাব ও ক্ষুধা-যন্ত্রণায় মানুষ যখন কঠিন পরিস্থিতি পার করছে তখন এ ধরনের বিলাসী পরিকল্পনা আর্থিক অপচয় হিসেবে মনে করেছেন অনেকে।
এর আগে গত মাসেও মিসর সরকার ঘোষিত ৩২ মিলিয়ন ডলারের কায়রো আই ল্যান্ডমার্ক ও ২৩ মিলিয়ন ডলারের ট্রেন লাইন প্রকল্প নিয়ে অনেকে সমালোচনা করে।

সূত্র : বিবিসি

Share This Post