মোবাইলে প্রেম করে বিয়ে আর বিয়ের পরদিন শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে এসে রাতেই টাকা-পয়সা, স্বর্ণালংকার ও মোবাইলসহ ঘরের মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়েছে প্রতারক বর। শিবচর উপজেলার পাচ্চর ইউনিয়নের গোয়ালকান্দা গ্রামে বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শিবচর উপজেলার পাচ্চর গোয়ালকান্দা গ্রামের হযরত বেপারির বিধবা মেয়ে রোকেয়ার সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সম্পর্ক গড়ে তোলে হৃদয়। বেশ কয়েক দিন মোবাইলে কথা বলার পর হৃদয় রাজধানীর গাবতলীর ঠিকানা দিয়ে তার বাবা-মা বেঁচে নেই বলে বিয়ের প্রস্তাব দেয় রোকেয়াকে। পরবর্তীতে গত মঙ্গলবার রোকেয়াকে বিয়ে করে শ্বশুরবাড়ি উঠে প্রতারক বর। বুধবার রাতে কৌশলে স্বর্ণালংকার, টাকা, মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে মেহমান আসবে বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে উধাও হয় ওই প্রতারক।

ভুক্তভোগী রোকেয়া আক্তার জানান, হৃদয় আমার সঙ্গে প্রেমের অভিনয় করে আমাকে বিয়ে করে। বিয়ের পরদিন সে কৌশলে আমার ঘরে থাকা টাকা, স্বর্ণালংকার, মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে গেছে। আমি এই প্রতারকের বিচার চাই।

তিনি বলেন, আমার স্বামী কয়েক বছর ধরে মারা গেছেন। নতুন ঘর-সংসারের আশায় আমি ওকে বিয়ে করেছি। ও যে আমার সঙ্গে এমন প্রতারণা করবে আমি বুঝতে পারিনি।

শিবচর থানার ওসি মো. মিরাজ হোসেন জানান, এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ দেয়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে আমরা ব্যবস্থা নেব।

Share This Post