পবিত্র রমজান মাসে কানাডার একজন পুলিশ সদস্যের আজান দেওয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। কানাডার আলবার্টা প্রদেশের ক্যালগরি শহরে আকরাম জুম্মা ইসলামিক সেন্টার মসজিদের ফেসবুক পেজে ভিডিওটি প্রকাশ করে।

ভিডিওর ক্যাপশনে মসজিদ পরিচালনা পরিষদ জানায়, ‘আজ ক্যালগিরর মুসলিম সমাজ একটি ঐতিহ্যবাহী দিন অবলোকন করেছে। কানাডা পুলিশ কর্মকর্তা আমাদের প্রিয় ভাই নাদির খলিল অফিসিয়াল পোশাকে শুক্রবার চতুর্থ রমজানের আজান দিয়েছেন।’

নাদির খলিল বলেন, ‘এটি আমার জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয় যে আমি কানাডিয়ান পুলিশের পোশাক পরে আজান দিয়েছি। বিষয়টি আমার জন্য অত্যন্ত আনন্দ ও গর্বের।’

খলিল আরো বলেন, ‘কানাডায় বসবাসরত মুসলিম ও অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের এই বার্তা দেয় যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রেখে শান্তিপূর্ণ বসবাসের উপযোগী দেশ কানাডা।’

সূত্র : আল জাজিরা নেট

আরও সংবাদ

মহামারি করোনাভাইরাস সংকটকালে নিজের ২২ লাখ রুপির গাড়ি বেচে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নজির গড়েছেন শাহনওয়াজ শেখ নামে মুম্বাইয়ের এক যুবক।

গাড়ি বিক্রির অর্থ দিয়ে করোনা রোগীদের অক্সিজেন সরবরাহ করে আসছেন তিনি। এলাকায় তাকে মানুষ ‘অক্সিজেন ম্যান’ নামে ডাকেন।

ভারতের সংবাদমাধ্যমেগুলোর খবরে বলা হয়, শাহনওয়াজের এক বন্ধুর স্ত্রী গত বছর করোনায় মারা যান। গাড়িতে করে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু হয় ওই নারীর। সেই ঘটনা নাড়িয়ে দেয় শাহনওয়াজকে।

এরপর থেকে তিনি কয়েকজনকে নিয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেমে পড়েন। এলাকায় মানুষের যারই অক্সিজেনের প্রয়োজন হচ্ছে শাহনওয়াজ পৌঁছে যাচ্ছেন তাদের কাছে।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সব থেকে বেশি যে চিকিৎসা উপাদান প্রয়োজন হচ্ছে তার মধ্যে অন্যতম অক্সিজেন। তার চাহিদা শাহনওয়াজের এলাকায়ও বাড়তে শুরু করেছে।

কিন্তু অক্সিজেন সিলিন্ডার হাতে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হাতের টাকায় টান পড়তে শুরু করেছে।

তাদের তৈরি কন্ট্রোল রুমে অক্সিজেন চেয়ে একের পর এক ফোন আসতে শুরু করে। তাই বাড়িত অক্সিজেনের চাহিদা মেটাতে টাকার জোগাড় করতে শেষ পর্যন্ত নিজের ২২ লাখ রুপির ফোর্ড এনডোভার বেচে দিয়েছেন শাহনাওয়াজ।

গাড়ি বিক্রি করে যে টাকা জোগাড় হয়েছে শাহনওয়াজরা তা দিয়ে নতুন করে ১৬০টি অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনেছেন। এখনও পর্যন্ত তারা প্রায় চার হাজার মানুষকে সাহায্য করেছেন।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

Share This Post