মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দল রোহিঙ্গা গণহত্যার খলনায়িকা সু চি’র এনএলডির নবনির্বাচিত এমপি হতিকে জাও’কে গুলি করে হত্যা করেছে অজ্ঞাতরা।

শনিবার শান রাজ্যে তাকে দোকানের সামনে গুলি করে অজ্ঞাত বন্দুকধারী। খবর রয়টার্স-এর।

হামলাকারীকে শনাক্ত করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এ ঘটনায় রোববার সু চির দলের পক্ষ থেকে নিন্দা জানানো হয়েছে।

এটিকে রাজনৈতিক সহিংসতা বলে উল্লেখ করা হয়েছে। দলের মুখপাত্র মিও নায়ান্ত জানিয়েছেন, কায়াউকমি শহরে বাড়ির পাশে একটি দোকান পরিচালনা করতেন এ নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য।সেই দোকানের সামনেই তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়।

মিও বলেন, ‘এক জন গ্রাহক আসায় তিনি দোকানের বাইরে গিয়েছিলেন। ওই গ্রাহকই তাকে গুলি করে। আমরা সহিংসতার নিন্দা জানাই, বিশেষ করে রাজনীতির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সহিংসতা, যা ভবিষ্যতের জন্য খারাপ।’

মিয়ানমার টাইমস জানিয়েছে, মোটরসাইকেলে দুই অজ্ঞাত ব্যক্তি তার দোকানে সামনে এসে পৌঁছায়। এ সময় একজন সংসদ সদস্যকে গুলি করে। গুলি তার বুকের ডান পাশে লাগে। তাকে উদ্ধার করে জেলা হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান।

গত ৮ নভেম্বর মিয়ানমারের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেই নির্বাচনে ৫০ বছর বয়সী জাও জয়লাভ করেন।

এছাড়া এই নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয় পায় অং সা সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি। দেশটির সেনা সমর্থিত বিরোধী দল অবশ্য পুনরায় নির্বাচন দাবি করেছে।

Share This Post