Spread the love

ডেনমার্কে মারিয়াম মসজিদ কোনো সাধারণ মসজিদ নয়। এই মসজিদের ইমাম শিরিন খানকান। মসজিদটি চালু হয়েছে, যেখানে শুধু নারীরাই সমবেত হবেন। উত্তর ইউরোপে এটাই প্রথম মসজিদ যেখানে নারী ইমাম আছেন। যুক্তরাষ্ট্রে নারী ইমাম পরিচালিত মসজিদ থাকলেও ইউরোপের স্ক্যান্ডিনেভিয়ান অঞ্চলে এমন মসজিদ এই প্রথম।

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন সূত্রে জানা গেছে, ডেনমার্কের নারী ইমামের মারিয়ম মসজিদের অবস্থান কোপেনহেগেন শহরে। এই মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা ডেনমার্কের লেখক ও ভাষ্যকার শেরিন খানকানের জন্ম ডেনমার্কে।

তাঁর বাবা সিরীয় এবং মা ডেনিস। ইসলামে পুরুষতান্ত্রিক পদ্ধতি নিয়ে বিতর্ক ও আলোচনার জন্ম দেওয়াই এই মসজিদ খোলার লক্ষ্য। মসজিদটির প্রতিষ্ঠাতাও শিরিন খানকান।

তিনি বলেন, মারিয়ম মসজিদের সব কার্যক্রমেই শুধু নারীরা সংশ্লিষ্ট থাকবেন। তবে শুক্রবার নারী-পুরুষ উভয়ই মসজিদে সমবেত হতে পারবেন। আর মসজিদের সব ইমামই হবেন নারী। শুধু ইসলাম নয়, ইহুদি ও খ্রিস্টধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো পুরুষতান্ত্রিক বলে ধরে নেওয়া হয়। বিষয়টি আমরা চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি।

তিনি আরো জানান, শহরের মুসলমান সম্প্রদায়ের কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া পেয়েছেন। তবে একই সঙ্গে বেশ নেতিবাচক মন্তব্য পাওয়া গেছে।

শিরিন খানকানের মতে, ইসলাম ধর্ম অনুযায়ী কোনো নারী ইমাম হতে পারে। অধিকাংশ নেতিবাচক মন্তব্যই হয়েছে অজ্ঞতা থেকে।

জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, জার্মানিসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই নারীদের মসজিদ স্থাপনের পরিকল্পনা চলছে। কোপেনহেগেনের বৃহত্তম কেন্দ্রীয় মসজিদের চেয়ারম্যান ইমাম ওয়াসিম হুসেন নারী মসজিদ প্রকল্প নিয়ে প্রশ্ন তোলেন।

Share This Post