Spread the love

বলিউড ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে চমকে দিয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী সানা খান। চমক বাকি ছিলো আরও। সেটা পূর্ণ হলো গুজরাটের এক মাওলানাকে বিয়ে করার মধ্য দিয়ে। মুফতি আনাস সাঈদকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিয়েছেন তিনি। এই বিয়ের ঘটনা তাকে প্রশংসিতও করেছে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের কাছে। স্বামীকে নিয়ে বেশ আছেন তিনি। কাশ্মীর গিয়েছেন হানিমুন করতে। বরকে নিয়ে সোশাল মিডিয়াতেও সারাদিন ব্যস্ত থাকেন সানা। পোস্ট করেন একের পর এক ছবি, ভিডিও। আর তা নিয়ে ট্রলের শিকারও হন যথারীতি।

এসব ট্রলে বিরক্ত মাওলানা আনাস সাঈদ। তিনি যেন বেশ বিপদেই পড়েছেন অভিনেত্রী বিয়ে করে। একদিক থেকে প্রশ্ন আসে কেন তিনি একজন আলেম হয়েও অভিনেত্রী-মডেল বিয়ে করলেন। অন্যদিক থেকে তার কাছে প্রশ্ন আসে কেন তিনি একজন অভিনেত্রীকে জোর করে শোবিজ ত্যাগ করিয়ে বিয়ে করলেন। স্বভাবতই বিরক্ত তিনি। তাই অনেকটা ধমকেও দিয়েছেন সমালোচকদের। এমনটাই দাবি করছে ভারতীয় গণমাধ্যম।

তারা এক প্রতিবেদনে উল্লেক করেছে, নিজের ছবি শেয়ার করে আনাস সাঈদ লিখেছেন, কারও পাপ বা অপরাধ দেখলে নিজের চোখ ঢেকে ফেল, তার জন্য দোয়া কর, পৃথিবীর লোকের পাপ ঢাকা দাও। তাতে কেয়ামতের সময় আল্লা তোমাদের পাপ ঢেকে ফেলবেন। শেষে লিখেছেন, আমিন।

এর আগেও এক সাক্ষাৎকারে আনাস বলেন, লোকে তাকে যা তা বলে যাচ্ছে। কারণ তিনি নাকি সানাকে অভিনয় ছাড়তে বাধ্য করেছেন। তার দাবি, তিনি এমন কিছুই করেননি, একেবারে নীচু চিন্তাভাবনা যাদের তারাই এমনটা রটাচ্ছে।

Share This Post