Spread the love

মিশরের আল-আজহারের অন্তর্গত একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী “ফাতেমা ইউসুফ আদলি হাসান” উসমান তাহার ক্যালিগ্রাফিতে কুরআন লিখেছেন।

পবিত্র কুরআনের এই পাণ্ডুলিপিটি তিনি মাত্র পাঁচ মাসে লিখেছেন।মিশরের কানা প্রদেশের ফারতুশ শহরের আল-হাজ সালাম গ্রামের নিবাসী ফাতেমা এ ব্যাপারে “আল ইয়াউম আস সাবেয়” বলেন: আমি অষ্টম শ্রেণীর সাহিত্য বিভাগের শিক্ষার্থী।

১৫ বছর বয়সে সম্পূর্ণ কুরআন হেফজ করেছি এবং কুরআন হেফজ করার পর মাত্র ৫ মাসে উসমান তাহা বর্ণমালায় কুরআন লিখেছি।তিনি বলেন পবিত্র কুরআন লেখার উদ্দেশ্য হচ্ছে আয়াতগুলো মুখস্থকরণকে একীভূত করা, আরবি স্ক্রিপ্ট শক্তিশালী করা এবং আমার লিপিটিকে উসমান তাহার ক্যালিগ্রাফির অনুরূপ করার চেষ্টা করা।

আমার একটি অনন্য কাজ হিসেবে এটা স্মৃতি হিসেবে থাকবে। মিশরের এই শিক্ষার্থী আরও বলেন: আমার জীবনে কুরআন লেখার এবং আয়াত মুখস্থ করা একটি গৌরব বিষয়।এ পর্যন্ত বেশ কয়েকটি কুরআন প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছি এবং সেখানে শীর্ষ স্থানে উত্তীর্ণ হয়েছে।

Share This Post